ফুটবল

হারলে মেসিদের বাড়ি ফিরতে মানা ম্যারাডোনার

Posted on


হারলে মেসিদের বাড়ি ফিরতে মানা ম্যারাডোনার

চিলির বিপক্ষে শতবর্ষী কোপা আমেরিকার ফাইনালে আর্জেন্টিনা হেরে গেলে মেসিদের আর দেশে ফেরার দরকার নেই বলে মন্তব্য করেছেন আর্জেন্টাইন ফুটবল ঈশ্বর ডিয়েগো ম্যারাডোনা। সোমবার (২৭ জুন) টানা দ্বিতীয়বার কোপার শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে চিলি-আর্জেন্টিনা। নিউ জার্সিতে বাংলাদেশ সময় সকাল ৬টায় হাইভোল্টেজ ম্যাচটি শুরু হবে। গত বছর টাইব্রেকারে জিতে শিরোপা উল্লাস করেছিলেন আলেক্সিস সানচেজরা। আলবিসেলেস্তেদের সামনে এবার প্রতিশোধ নেওয়ার চ্যালেঞ্জ। সেমিফাইনালে

যুক্তরাষ্ট্রকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়ার ম্যাচে অনন্য এক মাইলফলক স্পর্শ করেন লিওনেল মেসি। দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিকে গ্যাব্রিয়েল বাতিস্তুতাকে ছাড়িয়ে হয়ে যান আর্জেন্টিনার সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা (৫৫)। অধিনায়ক হিসেবে মেসির গোল সংখ্যা এখন ৩৮। যেখানে গোটা ক্যারিয়ারে ৩৪টি গোল করেন ম্যারাডোনা। ১৯৯৩ কোপার আসরের পর আর কোনো বড় শিরোপা জিততে পারেনি দু’বারের বিশ্বকাপ জয়ী আর্জেন্টিনা। ২৩ বছরের শিরোপা খরা ঘোঁচাতে পারবেন তো ম্যারাডোনার উত্তরসূরিরা? আর্জেন্টিনার একটি টিভি চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ম্যারাডোনা বলেন, ”অবশ্যই আমার মনে হয় আমরা জিতবো। কিন্তু তোমরা যদি না জিত, ফিরে এসো না।” 

20160612053f957

dfg

01

ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ সেই চিলি

Posted on


dfg

ফাইনালে আর্জেন্টিনার প্রতিপক্ষ সেই চিলি

এক বছর আগে সান্তিয়াগোর ম্যাচটাই ফিরে আসছে নিউ জার্সিতে। কেননা দ্বিতীয় সেমিফাইনালে কলম্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে ফের ফাইনালে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হচ্ছে টুর্নামেন্টের ডিফেন্ডিং চাম্পিয়ন চিলি। বৃহস্পতিবার সকালে শিকাগোর সোলজার ফিল্ড স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ১৩ মিনিটের মধ্যে চিলির দেওয়া দুই গোলই ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয়। এদিন, ম্যাচের ৭ মিনিটে মিডফিল্ডার চার্লেস আরানগিসের জোরালো শটে এগিয়ে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। আর ১৩তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন ফুয়েনসালিদা। যদিও গোলটির পেছনে পুরো অবদানই অ্যালেক্সিস সানচেসের। দুর্দান্ত গতিতে বাঁ দিক থেকে দুই ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে জোরালো শট নেন সানচেস। বল পোস্ট কাঁপিয়ে ফিরলে গোল করতে তাতে সামান্য একটু টোকার দরকার হয় ফুয়েনসালিদার। ২৩তম মিনিটে একটি গোল প্রায় শোধ করে ফেলেছিল কলম্বিয়া। হামেস রদ্রিগেসের পাস থেকে রজার মার্তিনেসের শট দক্ষতার সঙ্গে ঠেকান গোলরক্ষক ক্লাওদিও ব্রাভো। প্রথমার্ধের পর প্রবল বৃষ্টি আর সঙ্গে বজ্রপাতের শঙ্কায় আড়াই ঘণ্টার বেশি খেলা বন্ধ থাকার পর দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে ফিরলেও আর ম্যাচে ফিরতে পারেনি কলম্বিয়া। এর মধ্যে ৫৭তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে কালোর্স সানচেস মাঠ ছাড়লে ১০ জনের দলে পরিণত হওয়া কলম্বিয়ার জন্য ম্যাচে ফেরা আরও কঠিন হয়ে পড়ে। তবে প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠাতে না পারলেও পরে আর কোনো গোল হজম করতে হয়নি হামেস রদ্রিগেজের দলের। তৃতীয় স্থানের লড়াইয়ে গ্রেনডেইলে বাংলাদেশ সময়ে রবিবার ভোরে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি হবে কলম্বিয়া। পরে দিন সোমবার নিউ জার্সির ইস্ট রাদারফোর্ডে আর্জেন্টিনার মুখোমুখি হবে চিলি। গত বার ফাইনালে এই চিলির কাছে হেরেই শিরোপা হাত ছাড়া হয় দুই বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের।

20160612053f957

লেখকের অন্য চোখ গুলশানে কার কী লাভ হলো?

Posted on Updated on


12941401170500097041.gif

11259390710501569911
গুলশানে কার কী লাভ হলো?

আর কয়েকদিন পরেই খুশির দিন আসছে। বন্ধুদের বলব, ঈদ মোবারক। একটা খোশ মেজাজ ছিল, ভেবেছিলাম বাংলাদেশ প্রতিদিনের পাঠকের জন্য মজার লেখা লিখব, খুশির দিনে সেই লেখা পড়ে ভালো লাগবে সবার। কিন্তু ভাই, শুক্রবার রাতে ঘুমাতে যাওয়ার সময় যখন খবরটা জানতে পারলাম তখন নিজের কানকেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। শুক্রবার রাতের নামাজ পড়ার

dfg

সময়, যখন মসজিদ থেকে আজান দেওয়া হচ্ছিল সেই সময় যারা একের পর এক খুন করতে পারে তারা কি মানুষ? ঘুম চলে গিয়েছিল। বারবার ঢাকায় ফোন করেছি। অবাক হয়ে জানলাম, আমার যে বন্ধু গেণ্ডারিয়া বা বাংলাবাজার থাকেন; এ ঘটনার কথা তিনিও টিভি দেখে জেনেছেন। দোতলার বারান্দায় গিয়ে দেখেছেন রাস্তাঘাট স্বাভাবিক। একটু পরে তার ফোন এলো মানুষজন রাস্তায় বেরিয়ে এসেছে, গুলশানে ভয়ঙ্কর হত্যালীলা যারা চালিয়েছে তাদের ধিক্কার দিচ্ছে। তারপরই তিনি মহামূল্যবান প্রশ্নটি করলেন, ধিক্কার জানানো ছাড়া আমরা আর কী করতে পারি? কিছুই না। উত্তরে বলেছিলাম, চুপ করে ঘরে বসে না থেকে ধিক্কার জানানোটা যে অত্যন্ত 577392ef546c2 (1)জরুরি কাজ। এ মুহূর্তে আপনি যেমন গুলশানে নেই, আমিও না। কিন্তু ঢাকার বাংলাবাজার আর কলকাতার শ্যামবাজারে থেকেও আমাদের হৃদয় যে রক্তাক্ত হচ্ছে এটা না হলে আমরা কেঁচো বা পিঁপড়া হয়ে যেতাম। ধীরে ধীরে দেখলাম সেই মজার লেখাটা এ মুহূর্তে আমি লিখতেও পারছি না। চোখ বন্ধ করেও কয়েকশ’ মাইল দূরে বসেও গুলশানের রেস্তোরাঁতে নিহত মানুষের মুখগুলো দেখতে পাচ্ছি। যে পুলিশ কর্তারা দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে শহীদ হলেন তাদের সম্মান জানাতে মাথানত করে আছি। এ অবস্থায় মজার গল্প লেখা কি সম্ভব। যত বেলা গড়াচ্ছে তত নানা চিন্তা মাথায় আসছে, এই যে নির্মম হত্যাকাণ্ড হলো, তাতে কার কী লাভ হলো? যারা ওই রেস্তোরাঁকে বেছে নিয়েছিল তারা নিশ্চয়ই জানত চারপাশে চৌত্রিশটি বিদেশি দূতাবাস থাকায় তাদের কর্মীরা ওখানে খেতে আসবেন। হত্যাকাণ্ড চালালে সারা পৃথিবীতে খবরটা প্রচারিত হবে। মনে প্রশ্ন আসছে, সেই খবর প্রচার করে ওদের কী লাভ হলো? ধরা যাক ওখানে যারা খেতে এসেছিল তাদের বন্দী করে সরকারকে বাধ্য করাতে চেয়েছিল ইচ্ছা পূর্ণ করতে। হয়তো দলের কাউকে জেলমুক্ত করতে চেয়েছিল, কিন্তু ওরা নিশ্চয়ই জানত সরকার যদি তেমন প্রস্তাবে রাজি হতো তাহলেও গুলশানের ওই রেস্তোরাঁ থেকে বেরিয়ে গোপন জায়গায় যেতে পারত না। তার আগেই শাস্তি পেতে হতো। তাহলে এই পরিকল্পনা করে ওদের কী লাভ হতো? আমরা জেনেছি ওরা বাংলাদেশের মানুষ। বিশ্বাস করতে না চাইলেও এটা মিথ্যা নয়। এদের বাড়ি কোথায়? প্রচুর অস্ত্র নিয়ে এরা গণহত্যা করবে বলে এসেছিল? অস্ত্রগুলো কোথায় পেল, এই প্রশ্ন করছি না। ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশে চোরাকারবারিরা যে অস্ত্র ব্যবসায় খুব সফল তা এখন দিনের আলোর মতো স্পষ্ট। কিন্তু সেই অস্ত্র ব্যবহার করতে শিক্ষা নিতে হয়। আপনি আমি তো একটা এ কে ফোর্টি সেভেন দেখামাত্র চালাতে পারব না। এরা যখন অস্ত্র চালনা শিখছিল তখন কেউ টের পেল না কেন? সেই সন্ধ্যেবেলায় ওরা অস্ত্রসমেত গুলশানের রেস্তোরাঁতে কীভাবে এসেছিল। মনে রাখতে হবে, এটা দূতাবাসের এলাকা। তাই নিরাপত্তা ব্যবস্থা বেশ জোরদার। সেই নিরাপত্তা প্রহরীদের দেখার অভিজ্ঞতা আমারও হয়েছে। কিন্তু ঘটনার দিন যদি তারা সজাগ থাকতেন তাহলে হত্যাকারীরা রেস্তোরাঁতে পৌঁছাতেই পারত না। চোর পালালে বুদ্ধি বাড়ে, তাই এখন এসব ভাবছি। কিন্তু প্রশ্নটা রয়েই গেল, ঘটনা ঘটিয়ে কার কী লাভ হলো? মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিস্ময় প্রকাশ করে বলেছেন, নামাজের সময় যারা খুন করতে পারে তারা কীরকম মুসলমান? অন্ধ জঙ্গিদের কোনো ধর্ম থাকে না। তারা যে কাজ করে তার পেছনে নিজেদের ইচ্ছা থাকে না, মতলববাজ নির্দেশকের নির্দেশ অনুযায়ী করে থাকে, কাউকে স্বর্গ, অথবা হেভেন বা বেহেশত যাওয়ার লোভ দেখিয়ে হত্যা করতে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। কিন্তু এতে কার কী লাভ হয়? নিরীহ যেসব মানুষ নিহত হলেন, তাদের পরিবারে এখন শোকের ঘন ছায়া। যারা হত্যাকারী তাদের পরিবারের মানুষরা ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পারবে না। আমার দৃঢ় বিশ্বাস যারা হত্যা করতে এসে নিহত হয়েছেন তারা যদি পরে দৃশ্যগুলো দেখতে পেত তাহলে নিজেদের উন্মাদ ছাড়া অন্য কিছু ভাবত না। দেখতে দেখতে দিনের পরে দিন চলে যাবে। পদ্মা মেঘনায় প্রচুর জল বয়ে যাবে। ক্ষত শুকিয়ে যাওয়ার পর যে দাগ থেকে যায় ঠিক তেমনি গুলশান হত্যাকাণ্ডের দুঃসহ স্মৃতিও থেকে যাবে। কিন্তু কে উত্তর দেবে, যারা হত্যা করল তাদের কী লাভ হলো? কারও কোনো লাভ হলো না কিন্তু ক্ষতি হলো বাংলাদেশের। আতঙ্কিত হলো ভারতবর্ষ আর লজ্জায় অপমানে কেঁপে উঠল ভালোবাসা।

 

4133346336004816156

 

20160612053f957

 

 

 

01

সুয়ারেজের জোড়া গোলে বার্সার জয়

Posted on


সুয়ারেজের জোড়া গোলে বার্সার জয়

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে লুইস সুয়ারেজের জোড়া গোলে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারিয়েছে স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনা। দুই দলের লড়াইয়ে সুয়ারেজ যদি বার্সার জয়ের নায়ক হয়ে থাকেন তাহলে অ্যাটলেটিকোর পরাজয়ের খল নায়ক হলেন তোরেস।  শনিবার ‘এল ক্লাসিকো’তে রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে ২-১ গোলের হারের ক্ষত নিয়ে নিজেদের মাঠে আরেক মাদ্রিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নামে বার্সা। খেলার ২৫ মিনিটে গোল করে কাতালান শিবিরে কাঁপন ধরিয়ে দেন তোরেস। কিন্তু পরবর্তীতে খল নায়ক বনে গেছেন এই তিনি। ম্যাচের ৩৫ মিনিটের মাথায় সার্জিও বাস্কেটকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে যখন তোরেস মাঠ ছাড়েন তখনও ১-০ ব্যবধানের এগিয়ে ছিল অ্যাটলেটিকো। এমনকি ওই এক গোলে এগিয়ে থেকেও বিরতিতে যায় তারা। তবে বিরতির পর ১০ জনের দল নিয়ে আর পেরে উঠেনি মাদ্রিদ। দ্বিতীয়ার্ধের ১৮ মিনিটে অর্থাৎ খেলার ৬৩ মিনিটে সুয়ারেজ গোল করে খেলার সমতা ফেরান। এর ১০ মিনিট পর ফের সমর্থকদের উল্লাসে মাতিয়ে তোলেন বার্সার উরুগুয়ের এ তারকা খেলোয়াড়। এ জয়ের ফলে রিয়েল মাদ্রিদের সঙ্গে হারের শোকটা কিছুটা হলেও ভুলতে পারবে বার্সার সমর্থকরা!

বার্সাকে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ রিয়ালের

Posted on


বার্সাকে হারিয়ে মধুর প্রতিশোধ রিয়ালের

নভেম্বরে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকোতে নিজেদের মাঠ সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে বার্সেলোনার কাছে ০-৪ গোলের বড় ব্যবধানে হেরেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। শনিবার রাতে লা লিগায় মৌসুমের দ্বিতীয় এল ক্লাসিকোতে বার্সেলোনার মাঠ ন্যু ক্যাম্পে মেসি, নেইমারদের হারিয়ে সেই পরাজয়ের মধুর প্রতিশোধ নিলো রিয়াল। করিম বেনজেমা ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গোলে দশজন নিয়েও ২-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। অবশ্য ব্যবধানটা ৩-১ হতে পারত, যদি ওয়েলস তারকা গ্যারেথ বেলের গোলটি বাতিল না করতেন রেফারি। অন্যদিকে এগিয়ে গিয়ে হার এড়াতে পারেনি লুইস এনরিকের শিষ্যরা। এই হারের মধ্য দিয়ে বার্সেলোনার ৩৯ ম্যাচে অপরাজিত থাকার রেকর্ডে ছেদ পড়ল।  এদিন, ন্যু ক্যাম্পে প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি কোনো দলই। তবে বিরতির পর ম্যাচের ৫৬ মিনিটে জেরার্ড পিকের গোলে এগিয়ে যায় বার্সা। তবে তা বেশিক্ষণ ধরে রাখা যায়নি। ৬ মিনিট পর করিম বেনজেমা দারুণ এক গোল করে সমতায় ফেরে রিয়াল। এরপর ৮২ মিনিটে সার্জিও রামোস দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়লেও জয় কোনো সুবিধা আদায় করতে পারেনি বার্সালোনা। উল্টো ১০ জনের দল নিয়েও ম্যাচের ৮৫ মিনিটে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা। এ জয়ের ফলে ৩০ ম্যাচ থেকে ৬৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। ৩০ ম্যাচ থেকে ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে বার্সেলোনা। ৩১ ম্যাচ থেকে ৭০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

আরেকটি স্পোর্টস জন্য ভোট দিন ওয়েবের: ফক্স, স্কাই ইনভেস্ট স্ট্রীমিং সকার প্রারম্ভ FuboTV মধ্যে

Posted on


james-iniesta.jpg

<span title=”Another sign that sports on TV is moving to sports on the Web: TV giants 21st Century Fox and Sky are investing in FuboTV, a small but growing video subscription service focused on soccer.

“>আরেকটি নিদর্শন যে টিভিতে ক্রীড়া ওয়েব সাইটে খেলাধুলা চলন্ত হয়: টিভি দৈত্যদের 21st সেঞ্চুরি ফক্স এবং স্কাই FuboTV বিনিয়োগ করছে, একটি ছোট কিন্তু ক্রমবর্ধমান ভিডিও সাবস্ক্রিপশন পরিসেবার সকার উপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা.

কর্পোরেট চাচাতো ফক্স এবং স্কাই প্রতিটি একটি $ 15 মিলিয়ন বি বৃত্তাকার অংশ হিসেবে 6 মিলিয়ন $ নির্বাণ হয়; অন্যান্য বিনিয়োগকারীদের ডিসিএম অংশীদারিতে, Luminari ক্যাপিটাল, LionTree অংশীদার এবং সাবেক এনবিএ কমিশনার ডেভিড স্টার্ন অন্তর্ভুক্ত. <span title=”The company has raised $21 million to date.

“>কোম্পানী তারিখ থেকে 21 মিলিয়ন $ উত্থাপিত হয়েছে.

<span title=”FuboTV launched a little more than a year ago, and now says it has more than 40,000 subscribers paying $10 a month to watch a variety of live and taped games, which come from TV networks like Univision Networks and beIN Sports.

“>FuboTV বছর একটু বেশী আগে চালু করা হয় এবং এখন বলছেন এটি আরো তুলনায় 40,000 $ 10 একটি মাস পরিশোধ লাইভ এবং টেপ গেম, যা ইউনিভিসন নেটওয়ার্ক এবং beIN স্পোর্টস মত টিভি নেটওয়ার্ক থেকে আসা বিভিন্ন ঘড়ি গ্রাহক রয়েছে.

রাইট এখন FuboTV গ্রাহক এবং স্পেন লা লিগা মত লিগ যুক্তরাষ্ট্রে এমএলএস থেকে গেম একটি মিশ্রণ উপলব্ধ করা হয়, কিন্তু এটি যুক্তরাজ্যের প্রিমিয়ার লীগের মত সবচেয়ে চাওয়া-পরে ফুটবল প্রোগ্রামিং কিছু অ্যাক্সেস করতে পারছে না অথবা ইউরোপের <span title=”UEFA Champions League.

“>উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লীগ.

এটা যে জিনিস কিছু তার নতুন বিনিয়োগকারীদের মাধ্যমে, রাস্তা নিচে উপলব্ধ করা হতে পারে সম্ভব; স্কাই, উদাহরণস্বরূপ, যুক্তরাজ্যে প্রিমিয়ার লীগ অধিকার রয়েছে, এবং ফক্স প্রতি চুক্তি ঘোষণা প্রেস রিলিজ মার্কিন উয়েফা হয়েছে: “FuboTV ত্ত 21 সেঞ্চুরি ফক্স কিংবা স্কাই বর্তমানে লাইসেন্সিং হয় বিষয়বস্তু, কিন্তু উভয় কোম্পানীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করতে মনস্থ করা FuboTV এটা বাড়তে থাকে যেমন. “

মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সার ইতিহাস

Posted on


114.jpg

আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লিওনেল মেসির হ্যাটট্রিকে ভায়েকানোকে ৫-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সেলোনা। ঘরের মাঠে প্রথম পর্বে নেইমার একাই করেছিলেন চার গোল। এবার রায়ো ভায়েকানোর মাঠে গোল-উৎসবে মাতলেন বার্সেলোনার আরেক তারকা লিওনেল মেসি।

এই জয়ে লা লিগার শীর্ষস্থান আরো মজবুত করার পাশাপাশি বার্সা তাদের অপরাজিত রেকর্ডটা নিয়ে গেল ৩৫ ম্যাচে (২৯টি জয়, ৬টি ড্র), যা তাদের পৌঁছে দিয়েছে অনন্য এক উচ্চতায়।

অপরাজিত থাকার নতুন স্প্যানিশ রেকর্ড গড়েছে লুইস এনরিকের দল। বার্সা ভেঙে দিয়েছে ১৯৮৮-৮৯ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের ৩৪ ম্যাচে অপরাজিত (২৫টি জয়, ৯টি ড্র) থাকার আগের রেকর্ডটি।